শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১১:২৫ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ:
ধামগড় ইউঃ শ্রমিক লীগের সাধাঃ সম্পাদক খোকনের মায়ের মৃত্যুতে সভাপতি মোশারফের শোক বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে সনমান্দী ইউপি’র ৪, ৫ ও ৬নং ওয়ার্ডের সবাইকে পরি বানু’র শুভেচ্ছা ধামগড় ইউনিয়ন শ্রমিক লীগের সহ-সভাপতি হলেন গাজী আঃ কাদির ধামগড় ইউনিয়ন শ্রমিক লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত// সভাপতি মোশারফ ও সম্পাদক খোকন আমরা অহিংস ও নিরস্ত্র যুদ্ধ করবো-ভিপি বাদল মেয়র হাছিনা গাজীকে ও কাউন্সিলর আতিকুর রহমানকে পুনরায় নির্বাচিত করতে মতবিনিময় সভা আব্দুল হাই ভূঁইয়া’র ৭ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে এড. শাহাজাদা ভূঁইয়া’র গভীর শ্রদ্ধাঞ্জলি জামপুর ইউনিয়নের মাঝেরচরে শেখ রাসেল শিশু কিশোর ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন মদনপুর ইউনিয়ন আ’লীগের উদ্যোগে ও শেখ রুহুল আমিনের সৌজন্যে ভিপি বাদলের মাস্ক বিতরণ বন্দরের মিনারবাড়িতে বঙ্গবন্ধু পাঠাগারের সৌজন্যে ভিপি বাদলের মাস্ক বিতরণ

শেখ জামাল উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার হার বাড়াতে নিরলস কাজ করছেন শামীমা আক্তার মুন্নী

স্টাফ রিপোর্টারঃ
বন্দরের ধামগড় ইউনিয়নস্থ দশদোনা-হালুয়াপাড়ায় নারায়ণগঞ্জ-৫ (শহর ও বন্দর) আসনের সাংসদ একেএম সেলিম ওসমানের ব্যক্তিগত অর্থায়নে প্রতিষ্ঠিত শেখ জামাল উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার হার ও গুণগত মান বাড়াতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন উক্ত স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা খন্দকার শামীমা আক্তার মুন্নী (এমএসএস, বিএড ও এলএলবি)।

অত্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের লেখাপড়া ও পরীক্ষার ফলাফল সহ সার্বিক বিষয়ে শামীমা আক্তার মুন্নী সাংবাদিকদের জানান, আমি ১লা জানুয়ারি ২০১৬ সালে অত্র স্কুলে যোগদানের পূর্বে মালিবাগ কেরামতিয়া উচ্চ বিদ্যালয়, মদনপুর রহমানিয়া উচ্চ বিদ্যালয় এবং গিয়াসউদ্দিন চৌধুরী মডার্ন একাডেমীতে প্রায় ১২বছর সুনামের সহিত শিক্ষকতা করেছি। দীর্ঘদিনের শিক্ষকতা জীবনের অভিজ্ঞতার আলোকে ২০০জন শিক্ষার্থী নিয়ে ২০১৬ সালে অত্র স্কুলের শ্রেণি কার্যক্রম শুরু করি। বর্তমানে শিক্ষার্থীর সংখ্যা প্রায় ৭০০জন।

২০১৬ সালের জেএসসি পরীক্ষায় ৪০জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে শতভাগ পাশের কৃতিত্ব অর্জন করে। যেখানে ১০জন শিক্ষার্থী এ+ ও ৩জন সাধারণ বৃত্তি লাভ করে। ২০১৭ সালের জেএসসি পরীক্ষায় ৬৪জন এবং ২০১৮ সালের জেএসসি পরীক্ষায় ৮৫জন পরীক্ষার্থী পাশ করে। বিগত ৩ বছরের গড় পাশের হার ৯৩%। ২০১৯ সালের এসএসসি পরীক্ষায় ৩৯জন পরীক্ষার্থী পাশ করে, যেখানে পাশের হার ছিলো ৮০% ও সর্বোচ্চ গ্রেড পয়েন্ট ছিলো ৪.৭৫। অত্র স্কুলের পার্শ্ববর্তী কোন স্কুলের কোন শিক্ষার্থী উক্ত গ্রেড পয়েন্ট পেতে সমর্থ হয়নি এবং উক্ত বছরের জেএসসি পরীক্ষায় ৯৯জন শিক্ষার্থী পাশ করে। অত্র বিদ্যালয়ের শিক্ষার হার বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং আরও বাড়াতে আমরা সকলে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

এখানে উল্লেখ করছি যে, অত্র অঞ্চলে বিগত দিনে ছাত্র-ছাত্রীরা ৫ম শ্রেণি পাশ করার পর অধিকাংশ শিক্ষার্থীর লেখাপড়া বন্ধ হয়ে যেতো, ফলে তারা মাধ্যমিক শিক্ষা ব্যবস্থা থেকে বঞ্চিত হতো। লেখাপড়ার সুযোগ ও সঠিক পথপ্রদর্শকের অভাবে তাদের শিক্ষাজীবন সেখানেই শেষ হয়ে যেতো। অথচ সেই অঞ্চলেই দানবীর ও মহানুভব সাংসদ একেএম সেলিম ওসমানের অর্থায়নে অত্র স্কুল প্রতিষ্ঠা হওয়ায় সকল শিক্ষার্থীরা আজ উন্নত একটি পরিবেশে, সুন্দর একটি অবকাঠামোতে ও দক্ষ শিক্ষাব্যবস্থার আওতায় শিক্ষার সুযোগ পাচ্ছে। ফলে শিক্ষার হার দিনের পর দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। বিদ্যালয়ে বিষয়ভিত্তিক শিক্ষক দিয়ে পাঠদান করা হয়।

আমি প্রধান শিক্ষিকা হিসেবে আমার যে ভূমিকা হওয়া উচিৎ এবং শিক্ষক-শিক্ষিকা ও শিক্ষার্থী সহ যেভাবে একটি বিদ্যালয় পরিচালনা করা উচিৎ তা আমি সুচারূভাবে করছি এবং আগামীতেও করে যাব ইনশাআল্লাহ। শিক্ষার প্রসারে কাজ করে অত্র অঞ্চলের শিক্ষার হার বাড়ানো সহ প্রতিটি শিক্ষার্থী যাতে সুনাগরিক হিসেবে গড়ে উঠে মা-বাবার সুনাম বৃদ্ধি করতে পারে, আমি সেলক্ষ্যেই কাজ করে যাচ্ছি। প্রতিটি শিক্ষার্থী বড় হয়ে তারা দেশের জন্য কাজ করবে এবং নিজে সাবলম্বী হয়ে অন্যকেও সঠিক পথ অনুসরণে দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে বলে আমার প্রত্যাশা। রাজনীতি রাজনীতির জায়গায় এবং কোন রাজনৈতিক পরিচয় দিয়ে আমি বিদ্যালয় পরিচালনা করিনা। এমপি সেলিম ওসমান মহোদয়ের সার্বিক নির্দেশনায় ও অত্র বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মাসুম আহম্মেদ চেয়ারম্যানের সুপরামর্শে বিদ্যালয়ের সার্বিক কার্যক্রম সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে চলছে।

স্কুলের সাফল্য ও শৃঙ্খলা দেখে হয়ত কেউ কেউ শিক্ষার মান বিনষ্ট করতে ও স্কুলের ক্ষতি করতে বৃথা চেষ্টা ও অপপ্রচার চালাচ্ছেন। এটাতে আমরা বিচলিত নই। আল্লাহ আমাদের সহায় আছেন। আসুন শিক্ষার কথা ভেবে সকলে এক হয়ে কাজ করি এবং সম্মিলিতভাবে কাজ করে একটি বিকশিত ও সুশিক্ষিত সমাজব্যবস্থা গড়ে তুলি।

নিউজটি শেয়ার করুন:

আপনার মতামত কমেন্টস করুন


© All rights reserved © 2019 Newsnarayanganj71
Design & Developed BY N Host BD